সাবেক স্ত্রী খুন করেছেন মাঈনুদ্দিন শাহরিয়াকে

35

চট্টগ্রামের ফয়েস লেক লেকসিটি হোটেলে মাঈনুদ্দিন শাহরিয়াকে হত্যা করেন তাঁর সাবেক স্ত্রী রোকসানা আকতার পপি। ২০১২ সালে দুজনের বিয়ে হয় এবং ২০১৫ সালে বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

আজ শনিবার সকালে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ কমিশনার (সিএমপি) মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আমেনা বেগম। সংবাদ সম্মেলনে সিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ কর্মকর্তা আমেনা আরো জানান, ছাড়াছাড়ির পর ফেসবুকে অন্তরঙ্গ ছবি দিয়ে ট্যাগ করায় নৃশংসভাবে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন সাবেক স্ত্রী রোকসানা আক্তার পপি।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়,  গত ১৫ আগস্ট পপি চীন থেকে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণের পরের দিন মাঈনুদ্দিন শাহরিয়া শুভকে নিয়ে ফয়েস লেক লেকসিটি মোটেল ফাইভ হোটেলে রুম ভাড়া নেন। বৃহস্পতিবার রাতের কোনো এক সময়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাঈনুদ্দিন শাহরিয়ারকে গলা কেটে পপি পালিয়ে যান। পপিকে তাঁদের আলফালাহ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, ২০১৫ সালে দাম্পত্য কলহের কারণে বিচ্ছেদের পর পপি চিকিৎসা বিজ্ঞানে পড়তে চীন চলে যান। মাঈনুদ্দিন শাহরিয়ার তাঁদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ফেসবুকে যুক্ত করার ক্ষোভে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানায় পুলিশ।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE