সুখাতী বুদ্ধি প্রতিবন্ধীদের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার

    88

    ।।এজি লাভলু, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি।।

    কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরীর প্রত্যন্ত গ্রামে গড়ে ওঠা ‘সুখাতী বুদ্ধী প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়’র শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান (বিপিএম)।

    (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে সুখাতি বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ে হঠাৎ করেই আসেন তিনি। পরে শিক্ষার্থীদের হাতে শীতের কম্বল তুলে দেন।

    এর আগেও দু’বার এ বিদ্যালয়ে আসেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান (বিপিএম) এবং খেলনা ও খাবার বিতরণ করেছিলেন।

    বিদ্যালয়টি পুলিশ সুপার মহোদয়ের ভালবাসার জায়গা করে নিয়েছে। যখনই তিনি সময় পান তখনই তিনি ছুটে আসেন শিশুদের মাঝে, আদর করে বুকে টেনে নেন ভালবাসেন তাদের সাথে আনন্দঘন সময় কাটান। শিক্ষার্থীরাও এখন চিনি গেছে তাকে, কে আর আগে কোলে উঠবে শুরু হয় প্রতিযোগিতা। শিশুরা অনেক উচ্ছ্বসিত তাদরে প্রিয় স্যারকে কাছে পেয়ে বলছিলেন বিদ্যালয়টির সহকারী শিক্ষিকা রেশমা খাতুন।

    বিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক মোঃ আলমগীর হোসাইন বলেন, সত্যিকারের ভালবাসা আসলে এমনই হয়। স্যারকে যতই দেখছি ততই মুগ্ধ হচ্ছি। আমরা ভাগ্যবান এমন একজন সরল মানুষের সান্নিধ্যে আসতে পেরে। আমরা আসলে কম্বল বা কোন কিছু পেয়ে খুশি নই আমরা খুশি স্যারের ভালবাসা পেয়ে। আমার এমন সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের স্যার এভাবে বুকে টেনে নিবে কখনও ভাবনাতেও ছিল না। সারাজীবন আমরা সারের এ ভালবাসা ধরে রাখবো ইনশাআল্লাহ নিজের সেরা কাজটা দিয়ে। আমরা করবো জয় একদিন।

    উল্লেখ্য প্রতিষ্ঠানটি কুড়িগ্রাম জেলার একমাত্র চিকিৎসা প্রশিক্ষণ ও থেরাপি ভিত্তিক সমন্বিত স্কুল। অটিজম সেরিব্রাল পালসি ডাউন সিনড্রোম সেন্সরি ডিস অর্ডার, বিলম্বে কথা বলা, বিলম্বে বিকাশ ও অস্থিরতা সম্বলিত বিশেষ শিশুদের চিকিৎসা শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসনের মাধ্যমে তাদের স্বাভাবিক জীবনযাপন নিশ্চিত করায় প্রতিষ্ঠানটি লক্ষ্য।

    সমাজের সর্বস্তরের হৃদয়বান ব্যক্তিবর্গের সহযোগিতাসহ সরকারি বেসরকারি পৃষ্ঠপোষকতা প্রয়োজন প্রতিষ্ঠানটিকে টিকিয়ে রাখতে আমরা সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

    SHARE