স্থানীয় দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০, পুলিশের গুলি বর্ষন

104


।।সাজিদুল ইসলাম শোভন, নড়াইল।।

নড়াইল কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়া গ্রামে স্থানীয় আধিপত্যেকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। শনিবার সকালে পুরুলিয়া মোড়ের পাশে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের সময় দুইটি বাড়ী ভাংচুর করে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ ও প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানায়, পুরুলিয়া গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে জাকাতুর ফকির গ্রুপ ও স্থানীয় ইউ পি সদস্য কোবাদ মোল্যার গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘ দিন যাবত বিরোধ চলছিল।

শুক্রবার দুপুরে কোবাদ মোল্যার গ্রুপের লোকজন জাকাতুর ফকিরের সমর্থক সাবু ফকিরকে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে। এরই জের ধরে শনিবার সকালে উভয় পক্ষের সমর্থকরা বিভিন্ন প্রকার দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষের সময় উভয় গ্রুপের অন্তত ১০জন আহত হয়। আহতদের স্থানীয় ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উচ্চতর চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিক্যেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এ সময় পুলিশ ১০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষন করে এবং তিনজনকে আটক করে। এসময় কোবাদ মোল্যার গ্রুপের আমির হামজা ও আনোয়ার মোল্যার বাড়ীতে ব্যাপক ভাংচুর করে।

কালিয়া থানার ওসি মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, সংঘর্ষের খবর শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রেনে আনে। জড়িত থাকার সন্দেহে ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে বর্তমানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে ও পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

SHARE