স্বাস্থ্যবিধি মেনে যশোর-৬ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

113

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যশোর ৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হ‌য়ে‌ছে। মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল)) সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে। ভোটার দের জন্য সকল সুরক্ষা সামগ্রীর ব্যবস্থা করেছে নির্বাচন কমিশন ও আওয়ামী লীগ প্রার্থী শাহীন চাকলাদার।

নির্বাচনে আসনটিতে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার ও লাঙল প্রতীকের প্রার্থী জাতীয় পার্টির নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব। নতুন করে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোয় মাঠে নামেননি ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আবুল হোসেন আজাদ। যদিও ব্যালটে প্রতীকটি থাকছে। নির্বাচনকে নির্বিঘ্ন করতে মাঠে নেমেছে বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

যশোর জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ভোটগ্রহণ অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও নিরাপদ করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য নিয়োজিত রয়েছে। নির্বাচনী এলাকায় দুইজন জুডিশিয়াল ও ১৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছে। ছয় প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রয়েছে। ১৮টি মোবাইল টিম ও স্ট্রাইকিং ফোর্সের ছয়টি টিম নির্বাচনের মাঠে সার্বক্ষণিক কাজ করবে। প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ, আনসার-ভিডিপি সদস্যদের নিয়োজিত রাখা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন ভোটারদের জন্য অবশ্য প্রতিটি কেন্দ্রে ব্যানারসহ হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান, টিস্যু পেপারের ব্যবস্থা রেখেছে। পরামর্শ দেয়া হয়েছে ভোট দিয়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করার।

ভোটের দিন নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শাহীন চাকলাদার নিজ উদ্যোগে মোট দুই লাখ তিন হাজার ১৮ জন ভোটারের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করছে। এছাড়া স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রী নিয়ে আওয়ামী লীগের কর্মী সমর্থকরা ভোটের মাঠে উপস্থিত থাকবেন। করোনার সংক্রমণ ভোটারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষিত রাখতে প্রতিটি কেন্দ্রের প্রবেশে পথে সাবান পানির ব্যবস্থা করেছে। সেই সঙ্গে ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তাদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

SHARE