জেনারেল হাসপাতালে বেতন আটকে থাকা কর্মীদের ৩ লাখ টাকা প্রণোদনা দিলেন নওফেল

366

।। দেশরিভিউ, চট্টগ্রাম ।।

করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসায় নির্ধারিত চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে তিন লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। হাসপাতালে কর্মরত অস্থায়ী কর্মীদের প্রণোদনা দিতে এই টাকা দেওয়ার কথা জানিয়েছেন নওফেল, যাদের বেতন প্রশাসনিক জটিলতায় গত তিনমাস ধরে বন্ধ আছে।

এছাড়া করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসায় নিয়োজিত আরেকটি বেসরকারি হাসপাতালে উপমন্ত্রীর অনুরোধে নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা করছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম।

শনিবার (১৩ জুন) সকালে নগরীর খুলশীতে বেসরকারি হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতাল পরিদর্শনে যান উপমন্ত্রী নওফেল। চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণে থাকা হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তদের চিকিৎসা চলছে।

এসময় নওফেলের সঙ্গে থাকা জেলা সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতালে গিয়ে নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহে সংকটের বিষয়টি স্বচক্ষে দেখেন উপমন্ত্রী। এসময় তিনি গোল্ডেন অক্সিজেন লিমিটেডের মালিক সাবেক মেয়র এম মনজুর আলমকে নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহের অনুরোধ করেন। সাবেক মেয়র এতে সম্মতি দিয়ে দ্রুত সরবরাহ শুরুর আশ্বাস দেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতাল পরিদর্শনের সময় নিজ নির্বাচনী এলাকার চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের জন্য তিন লাখ টাকা সিভিল সার্জনের কাছে দেন উপমন্ত্রী। প্রয়াত বাবার নামে গড়া এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী ফাউন্ডেশন থেকে নগদ এই টাকা দেওয়া হয়েছে। এই টাকা দিয়ে হাসপাতালে পরিচ্ছন্নতাসহ আনুষাঙ্গিক কাজে নিয়োজিত ৩৬ জন অস্থায়ী কর্মচারীকে প্রণোদনা দেওয়ার নির্দেশ দেন নওফেল।

সংশ্লিষ্টরা জানান, গত বৃহস্পতিবার সুরক্ষা সামগ্রী দেওয়ার জন্য জেনারেল হাসপাতালে গেলে আউটাসোর্সিংয়ের ভিত্তিতে নিয়োগ পাওয়া ৩৬ জন অস্থায়ী কর্মীর বেতন-ভাতা প্রশাসনিক জটিলতায় গত তিনমাস ধরে বন্ধ থাকার কথা নওফেলকে জানানো হয়। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে এই দুঃসহ পরিস্থিতিতে বেতন-ভাতা না পেয়ে তাদের মানবেতন জীবনযাপনের কথাও তুলে ধরা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১ জুন করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ৬০ বছর বয়সী এক নারী পরিচ্ছন্ন কর্মীর মৃত্যু হয়। আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে নিয়োগ পাওয়া ওই নারীর বেতন-ভাতা না পেয়েই মৃত্যুর ঘটনায় তার সহকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের জন্ম দেয়।

SHARE