‘২০৪১ সালের মধ্যে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ’

6

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০৪১ সালের মধ্যে সরকার ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের মহাপরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। এসময় প্রধানমন্ত্রী দেশের সবাইকে বিদ্যুৎ অপচয় বন্ধের আহ্বান জানান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্ম যাতে সুন্দর জীবন পায় সে লক্ষ্য নিয়েই কাজ করছে সরকার।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ২৪ হাজার মেগাওয়াট ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ হাজার মেগাওয়াট এবং ২০৪১ সালের মধ্যে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের মহাপরিকল্পনা নিয়ে আমরা যাত্রা শুরু করেছি।

তিনি বলেন, এরই মধ্যে আমরা প্রায় ২০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা অর্জন করেছি।

শেখ হাসিনা বলেন, ২১০০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশকে আমরা কিভাবে গড়তে চাই সেই পরিকল্পনাও আমরা গ্রহণ করেছি।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে বিদ্যুৎ সঞ্চলন লাইন আমরা ৮ হাজার কিলোমিটার থেকে ১১ হাজার ১২২ সার্কিট কিলোমিটারে উন্নীত করেছি। বিতরণ লাইন ২ লাখ ৬০ হাজার কিলোমিটার হতে ৩ লাখ ৫৭ হাজার কিলোমিটারে উন্নীত করেছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০৯ সালে বিদ্যুৎ সুবিধাপ্রাপ্ত জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ছিল মাত্র ৪৭ শতাংশ। এরপরে দ্বিতীয় দফা সরকার গঠন করি। বর্তমানে তা ৯০ শতাংশে উন্নীত হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী এখন বাংলাদেশে। তাদের জন্যে যে ক্যাম্প করা হয়েছে। সেই ক্যাম্পের রাস্তাগুলোতে বিদ্যুৎ সংযোগ করে দিয়েছি।

তিনি বলেন, এখন ৬ টাকা ২৫ পয়সা পার কিলো ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে খরচ হচ্ছে। কিন্তু আমরা বিদ্যুৎ বিক্রি করছি ৪ টাকা ৮২ পয়সায়। আমরা ভর্তুকি দিচ্ছি। এক্ষেত্র আমার অনুরোধ থাকবে বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাই সাশ্রয়ী হতে হবে।

পরে, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে অবদান রাখায় ৪৭ ব্যক্তি ও ৩৫ প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE