৮২৭ কোটি টাকা ব্যয়ে বর্জ্য পুড়িয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন হবে

616

।দেশরিভিউ-জাতীয়।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আধুনিকায়নের মাধ্যমে ভূমির ওপর চাপ কমাতে হবে। পরিবেশবান্ধব ও মানসম্মত উপায়ে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা করতে হবে।

আজ রোববার সচিবালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলনকক্ষে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ‘আমিনবাজার ল্যান্ডফিল সম্প্রসারণ ও আধুনিকীকরণ’ প্রকল্পের পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনার স্থায়ী সমাধানের লক্ষ্যে প্রায় ৮২৭ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পের মাধ্যমে বর্জ্য পুড়িয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে সরকার। সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে তিন বছরে এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে।

মন্ত্রী বলেন, প্রকল্পের আওতায় ৬৮২০০ বর্গমিটার জমিতে দৈনিক ৫০০ মেট্রিক টন ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন তিনটি প্ল্যান্ট বরাদ্দ রাখা হয়েছে, যার মাধ্যমে বর্জ্য পুড়িয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে। এ ছাড়া ১৩৬০০ বর্গমিটার জমিতে মেডিকেল বর্জ্য ও ১৬০০০ বর্গমিটার জমিতে বর্জ্য রিসাইকেল ফ্যাসিলিটিজ স্থাপনের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, শুধু ইনসিনারেশন চালু হলে এক বছরের ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন ল্যান্ডফিলের লাইফ ৩ গুণ বাড়ানো যাবে। আমিনবাজার ল্যান্ডফিলের যে ধারণক্ষমতা, সেখানে আর ২ বছর পর্যন্ত বর্জ্য ফেলা সম্ভব। এ কারণে নতুন ল্যান্ডফিল নির্মাণ, ইনসিনারেশন প্ল্যান্ট বসানো, রিসোর্স রিকভারির জন্য অবকাঠামোর সুযোগ স্থাপন, মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও কম্পোস্ট প্ল্যান্ট স্থাপনের মাধ্যমে ‘আমিনবাজার ল্যান্ডফিল সম্প্রসারণ ও আধুনিকীকরণ’ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

এ সময় স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদসহ মন্ত্রণালয় ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

SHARE