মেসির পাশে খেলতে চাইছেন দিবালা

287

বিশ্বকাপ শুরুর আগে আর্জেন্টিনার কোচ জর্জ সাম্পাওলি বলেছিলেন, মেসি ও দিবালা একসঙ্গে খেলার জন্য প্রস্তুত নন। গত শনিবার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার ১-১ গোলে ড্র ম্যাচটা বেঞ্চে বসেই দেখতে হয়েছে দিবালাকে। তবে, এই বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার জার্সিতে মেসির পাশে খেলার জন্য নিজেকে প্রস্তুত রেখেছেন বলে দাবি করেছেন পাওলো দিবালা।

সোনালী ট্রফি ছুয়ে দেখার আরেকটি সুযোগ দুইবারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার সামনে। এর আগে পুঁচকে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করে বিশ্বকাপের শুরুটা মোটেই ভালো করেনি গতবারের রানার্স-আপরা। স্বপ্নের সারথি মেসিকে নিয়ে বুনছে তৃতীয় শিরোপা জয়ের স্বপ্ন। প্রথম ম্যাচে পেনাল্টি মিস করে জয় বঞ্চিত হন বার্সা তারকা। তারপরও মেসিকে সামনে রেখেই দল উজ্জীবিত হবার অনুপ্রেরণা খুঁজছে।

আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১১টি শট নিয়েও আর্জেন্টিনাকে জয়সূচক গোল এনে দিতে পারেননি মেসি। ক্রোয়েশিয়া ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে দিবালা জানান, আর্জেন্টিনা কিংবা বার্সেলোনা, কোথাও মেসির বিকল্প হওয়ার মতো কেউ নেই। এমনকি পুরো বিশ্বেও কেউ নেই। অবশ্যই আমি মনে করি, আমরা একসঙ্গে কাজ করতে পারি। আমার বিশ্বাস এই বিশ্বকাপেই তার পাশে খেলার সুযোগ পাবো। সেজন্য নিজেকে আরও বেশি প্রস্তুত করেছি।

মেসি-দিবালা দুজনের খেলার ধরন, মাঠের পজিশন অনেকটা একই রকম। দুজনই ডান প্রান্তে খেলতে বেশি পছন্দ করেন। কিন্তু একই পজিশনে দুজন খেলোয়াড় খেলানোর মতো বিলাসিতা করার সুযোগ নেই আর্জেন্টিনা কোচ সাম্পাওলির। মেসির জন্য অনেকটাই বেঞ্চে বসে বিশ্বকাপ দেখতে হবে এবারই প্রথম বিশ্বকাপ খেলতে আসা পাওলো দিবালাকে। তবে, জাতীয় দলে মেসির পাশে খেলার উপায় খুঁজে বের করা প্রয়োজন বলেও মনে করেন জুভেন্টাসের তারকা ফরোয়ার্ড দিবালা। জুভেন্টাসের গোলমেশিন আরও যোগ করেন, আমি মেসির পাশের পজিশনে খেলতে অভ্যস্ত হয়েছি। আমি কোন ফরমেশনে দলে অবদান রাখতে পারব, সেটা আমাদের ভেবে বের করতে হবে। কারণ সবাই জানে, আমি আর মেসি একই পজিশনে খেলি। আমি অবশ্যই মনে করি আমাদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

আইসল্যান্ডের বিপক্ষে মেসির পেনাল্টি মিস প্রসঙ্গে দিবালা জানান, আমরা জানি যে, আমাদের দলে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় আছে। আমাদের অবশ্যই তার থেকে সুবিধা নিতে হবে। প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রা তাকে মার্কিং করায় আমাদের সুবিধা আরও বেশি। প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডাররা তাকে মার্ক করতে গেলে যেই ফাঁকা জায়গা তৈরি হয়, সেটাকেই কাজে লাগাতে হবে আমাদের। মেসি যে জায়গাগুলো তৈরি করেন তার সুবিধা আমাদের নিতে হবে। যে কোনো প্রয়োজনে দলের সেরা তারকার পাশেই থাকতে হবে আমাদের। অবশ্যই আমরা সবাই তাকে সমর্থন করি, সেটা মনে করিয়ে দেওয়ার কোনো দরকার নেই। আর একটা পেনাল্টির ব্যর্থতাতে কিছু যায় আসে না। কারণ তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি সেটা ঠিক করতে এবং পরিস্থিতি বদলাতে চান। মেসি জানেন, আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে তিনি এখন আমাদের ওপর বেশি নির্ভর করতে পারেন।

বিশ্বকাপের মূলপর্বে আর্জেন্টিনার হয়ে মেসির পাশে খেলানোর জন্য কাকে খেলাবেন তা নিয়ে সাম্পাওলি নিজেও রয়েছেন মধুর সমস্যায়। প্রথম ম্যাচে মেসির পাশে আগুয়েরো ছিলেন, গোলও করেছেন। দ্বিতীয় ম্যাচেও তিনি অনেকটাই নিশ্চিত। কিন্তু আরেকজন ফরোয়ার্ড হিসেবে কাকে খেলাবেন তা নিয়ে চিন্তিত কোচ। এদিকে, দিবালা জোর দিয়ে জানালেন, আমাকে খুঁজে বের করতে হবে কীভাবে আমি দলে জায়গা করে নিতে পারি। কিন্তু যখনই আমাদেরকে দরকার আমরা মেসিকে সাহায্য করার জন্য প্রস্তুত আছি। আমরা তার পাশেই থাকব। এটা বদলাবে না।

‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে নামবে দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা। এ ম্যাচে অবশ্যই মেসি বাহিনীকে জিততে হবে। জয় না পেলে শেষ ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে জয় ও প্রতিপক্ষ দলগুলোর ফলাফলের ওপর নির্ভর করতে হবে তাদের। বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১২টায় শুরু হবে আর্জেন্টিনা-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচটি।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE