বিপদে আছি, বলছেন মোস্তাফিজ

45

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ রোগ। মহামরিতে রূপ নেওয়া এই রোগে আতঙ্কিত বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও।ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ আপাতত এক রাউন্ড স্থগিত। করোনাভাইরাসের এই আতঙ্কে লিগ আদৌ শুরু হয় কি না, সেটি নিয়ে আছে সংশয়। তবু দু-একজন ক্রিকেটারের আনাগোনা দেখা যাচ্ছে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। কেউ আসছেন ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে, কেউ একাডেমিতে আসছেন ব্যক্তিগত কাজে। মোস্তাফিজুর রহমানও এসেছেন। সাংবাদিকদের কাছে তিনি বারবার জানতে চাইছেন, প্রিমিয়ার লিগ চালু হবে নাকি স্থগিতই থাকবে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ রোগ। মহামরিতে রূপ নেওয়া এই রোগে আতঙ্কিত বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ আপাতত এক রাউন্ড স্থগিত। করোনাভাইরাসের এই আতঙ্কে লিগ আদৌ শুরু হয় কি না, সেটি নিয়ে আছে সংশয়। তবু দু-একজন ক্রিকেটারের আনাগোনা দেখা যাচ্ছে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। কেউ আসছেন ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে, কেউ একাডেমিতে আসছেন ব্যক্তিগত কাজে। মোস্তাফিজুর রহমানও এসেছেন। সাংবাদিকদের কাছে তিনি বারবার জানতে চাইছেন, প্রিমিয়ার লিগ চালু হবে নাকি স্থগিতই থাকবে।

যদি স্থগিতই থাকে, তাহলে কী করণীয়? মোস্তাফিজ জানান, তিনি আপাতত বাড়ি চলে যাবেন। বাড়ি গেলেও করোনা-আতঙ্কে থেকে কি মুক্তি মিলছে? অসহায় কণ্ঠে বাঁহাতি পেসার বলছেন, ‘কিছু করার নেই। সবাই বিপদে আছি।’ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ যেভাবে ছড়িয়ে পড়ছে, তাতে আতঙ্কিত বাংলাদেশ দলের আরেক ক্রিকেটার মেহেদী হাসান মিরাজও, ‘জীবনে এমনটা দেখিনি যে পৃথিবীর সব বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সারা বিশ্বের মানুষ এখন আতঙ্কগ্রস্ত। ভীষণ অস্বস্তিকর। জীবনমৃত্যুর ব্যাপার। আগে বাঁচতে হবে তারপর না হয় খেলা। সরকার কিংবা বিসিবি যে সিদ্ধান্ত দেবে, সেটি সবার ভালোর কথা ভেবেই দেবে।’

আপাতত এক রাউন্ডের জন্য ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রিমিয়ার লিগের ব্যাপারে আজ সিদ্ধান্ত হতে পারে বলে জানা গিয়েছিল। তবে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী দুপুরে জানিয়েছেন, আজ নয়; কাল ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান আনুষ্ঠানিকভাবে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবেন। সরকারের নির্দেশনা আছে ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব ধরনের খেলা বন্ধ থাকবে। সরকারের নির্দেশনার বাইরে বিসিবির যাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ।

SHARE