শনিবার, এপ্রিল ২০, ২০২৪

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার অকাস চুক্তি

পরবর্তী প্রজন্মের পারমাণবিক সাবমেরিন প্রকল্পে একমত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়া। এ বিষয়ে দেশগুলো একটি চুক্তি করেছে।

সোমবার ক্যালিফোর্নিয়ার সান দিয়েগোতে অকাস নামে এই চুক্তির বিষয়ে বিশদ তুলে ধরেন দেশগুলোর শীর্ষ নেতারা। এ চুক্তির আওতায় থাকবে- কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, কোয়ান্টাম টেকনোলজি ও সাইবারের মতো বিষয়গুলো।

চুক্তি অনুযায়ী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং অস্ট্রেলিয়ার নেতারা পরবর্তী প্রজন্মের পরমাণু চালিত সাবমেরিনের একটি বহর তৈরির পরিকল্পনা করছেন। মিত্র দেশগুলো যুক্তরাজ্যে রোলস-রয়েসের তৈরি চুল্লিসহ অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে একটি নতুন বহর তৈরি করতে একসঙ্গে কাজ করবে।

মূলত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে চীনের প্রভাব মোকাবিলা করার লক্ষ্যেই এই চুক্তি করা হয়েছে।

অকাস চুক্তির আওতায় অস্ট্রেলিয়া প্রথমে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে অন্তত তিনটি পারমাণবিক সাবমেরিন পাবে।

সোমবার বর্ণিত চুক্তির অধীনে, রয়্যাল অস্ট্রেলিয়ান নেভির (আরএএন) সদস্যরা সাবমেরিন ব্যবহারের প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জনের জন্য চলতি বছর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সাবমেরিন ঘাঁটিতে যুক্ত হবেন।

এরপরের পরিকল্পনাটি হলো যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ান নৌবাহিনীর জন্য একটি সম্পূর্ণ নতুন পারমাণবিক চালিত সাবমেরিন ডিজাইন ও নির্মাণ করা। যার নাম এসএসএন-অকাস। এই অ্যাটাক ক্রাফট ব্রিটেন ও অস্ট্রেলিয়ায় তৈরি করা হবে। এতে তিনটি দেশের প্রযুক্তিই ব্যবহার করা হবে।

সর্বশেষ