বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

দুই শীর্ষ রুশ কমান্ডারের বিরুদ্ধে আইসিসির পরোয়ানা

ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে রাশিয়ার সশস্ত্রবাহিনীর দুই শীর্ষ কমান্ডারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। এ নিয়ে দ্বিতীয় দফা রুশ কর্মকর্তাদের ওপর গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হলো। খবর বিবিসি।
গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়া দুই রুশ কমান্ডারদের একজন হলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল সার্গেই কোবিলাস ও রুশ নেভির একজন অ্যাডমিরাল ভিক্টর সকোলভ। এর আগে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি ইউক্রেনীয় শিশুদের জোর করে রাশিয়ায় স্থানান্তর করেছেন।

সার্গেই কোবিলাস তার বিরুদ্ধে যে সময়সীমার মধ্যকার অভিযোগ আনা হয়েছে সে সময় রাশিয়ার বিমানবাহিনীর দূরপাল্লার বিমান চলাচল বিভাগের কমান্ডার ছিলেন এবং সকোলভ রুশ নৌবাহিনীর অ্যাডমিরাল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের সময় তিনি রুশ নৌবাহিনীর কৃষ্ণসাগর বহরের কমান্ডার ছিলেন।

রাশিয়া এখনও আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতকে স্বীকৃতি দেয়নি। ফলে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার রাশিয়ার শীর্ষ দুই সমর কর্মকর্তাকে দেশটি আইসিসির কাছে হস্তান্তর করবে এমন সম্ভাবনা কম।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় আইসিসি বলেছে, ‘এই দুই সন্দেহভাজন ব্যক্তি ইউক্রেনের বৈদ্যুতিক অবকাঠামোয় তাদের অধীনস্থ বাহিনীর পরিচালিত ক্ষেপণাস্ত্র হামলার জন্য দায়ী বলে বিশ্বাস করার যুক্তিসংগত কারণ থাকায় এই পরোয়ানা দেওয়া হয়েছে।’ আইসিসি জানিয়েছে, ২০২২ সালের অক্টোবর থেকে ২০২৩ সালের মার্চ মাসের মধ্যে এসব হামলা সংঘটিত হয়েছে।

আইসিসি বলেছে, এসব হামলা বেসামরিক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে- যা স্পষ্টতই মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। আদালত আরও বলেছে, ‘এই দুই ব্যক্তির প্রত্যেকই বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালানোর যুদ্ধাপরাধের জন্য দায়ী এবং মানবতাবিরোধী অমানবিক কর্মকাণ্ডের জন্যও অভিযুক্ত।’

সর্বশেষ