শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪

মেসিদের বাংলাদেশে আনতে লাগবে ১০৫ কোটি টাকা!

সেই ২০১১ সালের ৬ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে এসেছিলো মেসির আর্জেন্টিনা। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে লিওনেল মেসিরা নাইজেরিয়ার বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচে অংশ নিয়েছিল। দীর্ঘ ১১ বছর পর আবারও আর্জেন্টিনাকে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেছে বাংলাদেশ। পার্থক্য হলো এবার তারা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন।

আগামী জুন-জুলাইয়ে ফিফা উইন্ডোতে কাতার বিশ্বকাপজয়ীদের ঢাকায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন বাফুফে। তবে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের ঢাকায় উড়িয়ে আনতে ফুটবল ফেডারেশনকে গুনতে হবে বেশ বড় অংকের টাকা।

বোর্ডের ভাষায়, এক দশক আগে আর্জেন্টিনাকে আনতে যা খরচ হয়েছিল, এবার তার থেকে অনেক বেশি হবে। দশ বছরে অনেক কিছুই বেড়েছে। তাছাড়া এখন তারা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। সব মিলিয়ে আর্জেন্টিনাকে আনতে ৭ মিলিয়ন ডলার লাগতে পারে। আর পুরো ম্যাচের ব্যয় মিলিয়ে ১০ মিলিয়নের মতো হতে পারে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১০৫ কোটি টাকা!

২০১১ সালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ ছিল নাইজেরিয়া। তবে এবার প্রতিপক্ষ কারা হবে সেটা নিয়ে এখনো ভাবছেন না বাফুফে সভাপতি। তার কথা, আগে আর্জেন্টিনা আসার ব্যাপারটা নিশ্চিত করা হোক, তারপর প্রতিপক্ষ নিয়ে ভাবা যাবে।

তবে বর্তমান প্রেক্ষাপটে সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে স্টেডিয়াম। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম এখনও সংস্কারধীন। তবে জুনের আগে স্টেডিয়াম পাওয়া যাবে বলে আশা করছেন বাফুফে সভাপতি।

এর আগে ২০১১ সালে আর্জেন্টিনাকে আনতে প্রায় সাড়ে তিন মিলিয়ন ডলার লেগেছিল বাংলাদেশে। এগারো বছর পর সেই অংকটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ মিলিয়ন ডলারে।

সর্বশেষ