মঙ্গলবার, মার্চ ৫, ২০২৪

বন্যা নিয়ন্ত্রণ সুবিধার আওতায় ৫ লাখ ৬৪ হাজার হেক্টর এলাকা

গত ১৪ বছরে ৫ লাখ ৬৪ হাজার হেক্টর এলাকা বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও নিষ্কাশন সুবিধার আওতায় এসেছে বলে জানিয়েছেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক।

বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে নোয়াখালী-২ আসনের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলমের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে তিনি এ কথা জানান। এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন।

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত ১৪ বছরে বাংলাদেশে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক সর্বমোট ৭৬টি বেড়িবাঁধ নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হয়েছে। প্রকল্পসমূহের আওতায় মোট ১৬১৫.৫৩৬ কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণ এবং ৪৪০৪.৪৪৭ কিলোমিটার বাঁধ পুনর্বাসন, মেরামত ও পুনরাকৃতিকরণ করা হয়েছে। এ সব প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে গত ১৪ বছরে ৫.৬৪ লাখ হেক্টর এলাকা বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও নিষ্কাশন সুবিধার আওতায় এসেছে।

চট্টগ্রাম-১১ আসনের সংসদ সদস্য এম আব্দুল লতিফের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, মানব সভ্যতার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে পানির যথাযথ ও টেকসই ব্যবহার। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পানির চাহিদা বেড়ে চলেছে ব্যাপকভাবে। ২০২২ সালের এসডিজি প্রতিবেদন অনুযায়ী বর্তমানে বিশ্বের প্রায় দুইশ কোটি মানুষ তাদের চাহিদা মোতাবেক নিরাপদ পানির পরিমিত প্রাপ্যতা পাচ্ছে না এবং প্রায় অর্ধেক মানুষ বছরের কোনো না কোনো সময়ে এই পানির তীব্র সংকটে পড়ে। বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার মতে, জলবায়ু পরিবর্তন এবং ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাপে এই সংখ্যা বদ্ধি পেতে পারে। পানি সম্পদের দীর্ঘস্থায়ী ও টেকসই প্রাপ্যতা নিশ্চিতকরণ এবং নতুন কোন বিপর্যয় ঠেকাতে পানির সুচিন্তিত ও পরিকল্পিত ব্যবহার ও ব্যবস্থাপনার বিকল্প নেই।

সর্বশেষ