বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

জন্মদিনের কথা বলে কলেজছাত্রকে অপহরণ করেন ফেসবুকের প্রেমিকা

অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্র রবিউল ইসলাম স্বাধীন। বেশ কিছুদিন আগে ফেসবুকে শারমিন আক্তার শিলা নামের একজনের সঙ্গে পরিচয় হয় তার। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেই প্রেমিকা জন্মদিনের কথা বলে কলেজছাত্র স্বাধীনকে করেন অপহরণ।

কলেজছাত্র স্বাধীনের বাড়ি বাগেরহাট সদরের যাত্রাপুর এলাকায়। অপহৃত ঐ কলেজছাত্রকে চিতলমারী উপজেলার শৈলদাহ থেকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে অভিযান চালিয়ে অপহরণকারী চক্রের ৬ সদস্যকেও আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- সৈয়দ আল হারুণ (২০, মো. তানিম হোসেন (২৩), সুজন শেখ (২৫), মো. ডালিম ফরাজী (২০), মো. সুজন শেখ (২০) ও সেলিম মীর (৫৫)। এদের বাড়ি বাগেরহাট ও পিরোজপুর জেলার বিভিন্ন এলাকায়।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ রাসেলুর রহমান জানান, বেশ কিছুদিন আগে সরকারি প্রফুল্ল চন্দ্র (পিসি) কলেজের অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্র রবিউল ইসলাম স্বাধীনের সঙ্গে কলেজছাত্রী শারমিন আক্তার শিলার ফেসবুকে পরিচয় হয়। এরপর গত ১৬ ফেব্রুয়ারি অপহরণকারী চক্রের নারী সদস্য শারমিন নিজের জন্মদিন পালনের কথা বলে স্বাধীনকে বাড়ি থেকে ফোন করে দেখা করতে বলে।

এরপর ঐ রাতে চক্রের অন্যান্য সদস্যের সহযোগিতায় স্বাধীনকে মাইক্রোবাসযোগে তুলে নিয়ে গোপালগঞ্জ টুঙ্গিপাড়ায় নিয়ে যায়। পরদিন অপহৃতের বাবার কাছে চক্রের সদস্যরা এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। বিষয়টি স্বাধীনের বাবা পুলিশকে জানালে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ১৭ ফেব্রুয়ারি রাতে বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার শৈলদাহ থেকে অপহৃতকে উদ্ধার করা হয়।

এরপর পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর এলাকা থেকে দুই সহোদরসহ অপহরণের সঙ্গে জড়িত ৬ জনকে আটক করে। আটকদের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এ ঘটনায় স্বাধীনের বাবা ওমেদ আলী শেখ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। তবে চক্রের মূলহোতা ফেসবুকের প্রেমিকা শারমিন আক্তার শিলা এখনো আটক হয়নি।

সর্বশেষ