বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচন: নারী ভোটার উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো

উৎসবমুখর পরিবেশে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শনিবার (৯ মার্চ) সকাল ৮টা থেকে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। যা টানা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। সকাল থেকে অধিকাংশ ভোটকেন্দ্রে নারী ভোটার উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। এ সময় নারী ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে।

নগরী প্রিমিয়ার আইডিয়াল হাইস্কুল কেন্দ্রে ভোট দিতে এসেছেন কালিবাড়ি এলাকার ভোটার কমলা রানি। তিনি বলেন, ‘সকাল সকাল ভোট দিতে এসেছি। ভোট দিয়ে বাসায় গিয়ে দুপুরের জন্য রান্নাবান্না করবো।’ শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণ হচ্ছে বলে জানান তিনি।

আরেক ভোটার সাথি রানি বলেন, ‘সকাল থেকেই কেন্দ্রে নারী ভোটার উপস্থিতি বেশি দেখা গেছে। নারীরা যথেষ্ট সচেতন হয়েছে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে বেছে নেয়ার জন্য। ইভিএমের মাধ্যমে আমিও আমার পছন্দের প্রার্থীকে বেছে নিয়েছি।’

প্রিমিয়ার আইডিয়াল হাইস্কুল কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার নূর মোহাম্মদ খান বলেন, ‘সকাল থেকেই শান্তিপূর্ণ ভোট চলছে। ইভিএমে ভোট দেওয়ার বিষয়ে কোনও অভিযোগ নেই। কেন্দ্রে পুরুষের চেয়ে নারী ভোটারের সংখ্যা বেশি।’

এদিকে, সদ্য সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মেয়র প্রার্থী মো. ইকরামুল হক টিটু সকাল ১০টায় নগরীর প্রিমিয়ার আইডিয়াল হাইস্কুল কেন্দ্রে ভোট প্রদান করেন। এ সময় সাংবাদিকদের তিনি জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। জয়ের ব্যাপারে তিনি শতভাগ আশাবাদী।

একই সময়ে নগরীর এডওয়ার্ড ইনস্টিটিউশন ভোটকেন্দ্রে মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সাদেক খান মিল্কি টজু ভোট প্রদান করেন। সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেয়র প্রার্থী এহতেশামুল আলম নগরীর মুসলিম গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট প্রদান করেন। অপর মেয়র প্রার্থী জাপার নেতা শহীদুল ইসলাম স্বপন মণ্ডল এবং কৃষক লীগ নেতা রেজাউল হক নিজ নিজ এলাকায় ভোটকেন্দ্রে ভোট প্রদান করেছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন জানান, সকাল থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। কোথাও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, ময়মনসিংহ সিটিতে ১২৮টি ভোটকেন্দ্রের ৯৯০টি ভোটকক্ষে তিন লাখ ৩৬ হাজার ৪৯৬ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার সুযোগ পাচ্ছেন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৬৩ হাজার ৮৭২ জন। নারী ভোটার এক লাখ ৭২ হাজার ৬১৫ জন এবং নয় জন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার।

এই সিটিতে মেয়র পদে পাঁচ জন, ৩৩টি সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ১৪৯ জন এবং ১১টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৬৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মেয়র প্রার্থীরা হলেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের সদ্য সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইকরামুল হক টিটু (টেবিল ঘড়ি), জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম (ঘোড়া), উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাদেক খান মিল্কি টজু (হাতি), কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সদস্য রেজাউল হক (হরিণ) এবং জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম স্বপন মণ্ডল (লাঙ্গল)।

নগরীর ৩৩টি ওয়ার্ডের ১২৮টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে অন্তত ৫০টি কেন্দ্রকে অধিক গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা করা হয়েছে। ভোটের পরিবেশ শান্ত রাখতে সাধারণ কেন্দ্রে ১৬ জন এবং গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ১৯ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছেন। এ ছাড়া রয়েছে মোবাইল টিম, স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে পুলিশ, এপিবিএন, আনসার ব্যাটালিয়ন, বিজিবি ও র‌্যাব।

ভোটের পরদিন পর্যন্ত নির্বাচনি এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন থাকবে জানিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ১১ জন ম্যাজিস্ট্রেট মাঠপর্যায়ে কাজ করছে। এক হাজার ৫৩৬ জন আনসার, ৭ প্লাটুন বিজিবি, ১৭ টিম র‌্যাব কাজ করছে।’

সর্বশেষ