সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪

মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে কোনও সংকট নেই: ওবায়দুল কাদের

মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে কোনও সংকট নেই: ওবায়দুল কাদের, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে কোনও সংকট নেই। রাজনৈতিক বিরোধিতার জন্যই অনেকে নিরাপত্তাহীনতার কথা বলছে।’

বুধবার (৩ এপ্রিল) সকালে ধানমন্ডির ঐতিহাসিক ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাসভবনের সামনে সাধারণ মানুষের মাঝে ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সারা রাত ধরে ঈদের শপিং চলছে, শপিং করতে গিয়ে কোথাও কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেনি। তারপরও রাজনীতির বিরোধিতার জন্য কথা বলে নিরাপত্তাহীনতা নিয়ে। কারও নিরাপত্তা বিঘ্নিত হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপির সব নেতা একে একে জেল থেকে বের হয়েছে। তারপরও বলে তাদের ৮০ ভাগ নেতাকর্মী নাকি নির্যাতনের শিকার। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে বলেছি— নির্যাতিত ৮০ ভাগ নেতাকর্মীর তালিকাটা প্রকাশ করেন। কেউ অপরাধ করলে, আগুন সন্ত্রাসের মামলা, মানুষ খুনের মামলার আসামি; যারা জেলে রয়েছে তাদের জন্য বিএনপির এত মায়া কান্না কেন?’

দ্রব্যমূল্য নিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বৈশ্বিক বাজারে তেলের দাম বাড়লে বাংলাদেশেও সমন্বয় করা হচ্ছে। জিনিসপত্রের দামও কমে যাচ্ছে। আজ বিএনপি নেতারা বড় বড় কথা বলে, গরিবের জন্য মায়া কান্না করে; তাদের আমলে, জিয়াউর রহমানের সময়ে অভাবের তাড়নায় অনেক নারী রংপুর কোর্টে গিয়ে পতিতাবৃত্তিতে নাম লিখিয়েছিলেন। সে ইতিহাস কি ভুলে যান?’

তিনি বলেন, ‘ঢাকা সিটিতে এত ভিক্ষুক কেন— আজ বাংলাদেশে যারা এমন প্রশ্ন করেন, তাদের লজ্জা করে না? তারা একজন গরিব মানুষকেও এই কষ্টের দিনে রোজার মাসে কোনও প্রকার সাহায্য করেনি। ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেনি। বড়লোকদের নিয়ে বড় বড় হোটেলে ইফতার পার্টি করেছে। আর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নির্দেশে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সারা দেশে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করছে।‘

আড়ও পড়ুন: ট্রেনে রাজধানীবাসীর ঈদযাত্রা শুরু

মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে কোনও সংকট নেই: ওবায়দুল কাদের, ‘ঈদের সময় ঢাকা সহ বড় বড় শহরে দান খয়রাতের আশায় কিছু মানুষ আসে। কিন্তু এ পর্যন্ত না খেয়ে মানুষ রাস্তায় পড়ে মরে আছে এমন কেউ নেই। ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির উদ্ভট কথায় আওয়ামী লীগ কান দেবে না। বিপদে অসহায় মানুষের পাশে থাকা আওয়ামী লীগের রাজনীতি।’

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস ও ঢাকা ১০ আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌস আহমেদ। পরে সাধারণ মানুষের মাঝে ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সর্বশেষ