শনিবার, এপ্রিল ২০, ২০২৪

৩০০ কোটি বাজেটের ছবি নিয়ে আসছেন শাহরুখ-সালমান

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির জন্য ২০২৩ সালটা শুরু হয়েছে দুর্দান্তভাবে। একের পর এক চমকপ্রদ সব খবর আসছে বলিউডের অন্দর থেকে। গত জানুয়ারিতে মুক্তি পেয়েছিল শাহরুখ খান অভিনীত চলচ্চিত্র ‘পাঠান’। এ ছবির মাধ্যমে দীর্ঘ চার বছর পর বড় পর্দায় রাজকীয় প্রত্যাবর্তন ঘটে বলিউড বাদশার। এরইমধ্যে বি-টাউনের প্রায় সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে ‘পাঠান’। সেই সঙ্গে বিশ্বজুড়ে চলছে শাহরুখ-উন্মাদনা।

অন্যদিকে, আসন্ন ঈদুল ফিতরে মুক্তি পেতে যাচ্ছে সালমান খান অভিনীত ‘কিসি কা ভাই, কিসি কি জান’ ছবিটি। এছাড়া, আগামী নভেম্বরে মুক্তি পাবে বলিউড ভাইজানের বহুল প্রতীক্ষিত চলচ্চিত্র ‘টাইগার-3।

যশ রাজ ফিল্মসের স্পাই-ইউনিভার্সে প্রধান দুই নাম টাইগার ও পাঠান। সম্প্রতি যশ রাজ ফিল্মস ঘোষণা করেছে, ‘টাইগার ভার্সেস পাঠান’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় একসঙ্গে দেখা যাবে শাহরুখ খান ও সালমান খানকে, যা সিনেমাপ্রেমীদের বহুদিনের চাওয়া ছিল!

এদিকে, এই খবরে দারুণ উত্তেজিত বলিউড সিনেমাপ্রেমীরা। কারণ একই সিনেমায় শাহরুখ-সালমানকে তো সচরাচর দেখা মেলে না! তাছাড়া, ‘টাইগার ভার্সেস পাঠান’ সিনেমাটি পরিচালনা করবেন সিদ্ধার্থ আনন্দ।

জানা গেছে, ‘টাইগার ভার্সেস পাঠান’ সিনেমার বাজেট আকাশচুম্বী। আদিত্য চোপড়া এবং তার টিম মিলে এই সিনেমার আনুমানিক বাজেট ধরেছেন ৩০০ কোটি রূপি, তাও আবার এর মধ্যে সালমান ও শাহরুখের পারিশ্রমিক নেই। কারণ দুই খানেই সিনেমার লভ্যাংশ থেকে পারিশ্রমিক নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

এই ছবিটি নির্মাণের বাজেট ‘পাঠান’ এবং ‘টাইগার-3-এর বাজেটকেও ছাড়িয়ে যাবে। অর্থাৎ, দুই ‘খান’ অভিনীত এই ছবিই হতে যাচ্ছে বলিউডের সবচেয়ে ব্যয়বহুল চলচ্চিত্র। তাই এ সিনেমা থেকে আয়ও হবে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে এক ইতিহাস।

তার উপর আদিত্য চোপড়া এবং সিদ্ধার্থ আনন্দ এই ছবিতে ভিএফএক্স, অ্যাকশন সবকিছুই একেবারে চোখে পড়ার মতো করে তৈরি করবেন। তাই ‘টাইগার ভার্সেস পাঠান’ যে দর্শকদের জন্য সেরা সিনেম্যাটিক অভিজ্ঞতা হবে তা বলাই বাহুল্য।

সর্বশেষ