শনিবার, মার্চ ২, ২০২৪

শেরপুরে ৯ মাস পর ধর্ষন মামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

শেরপুর জেলার সদর উপজেলায় নার্সারি শ্রেণী পড়ুয়া এক শিশু ধর্ষণ মামলার পলাতক প্রধান আসামী মোঃ রুবেল মিয়া (৩২) কে ঘটনার ৯ মাস পর আটক করেছে র‍্যাব-১৪।

শুক্রবার বিকালে সদর থানার সাপমারী এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সদর উপজেলার সাপমারী এলাকার মোঃ বেলাল হোসেনের ছেলে আসামি রুবেল মিয়া ভিকটিমের পাশের বাড়ির বাসিন্দা। আসামিকে শেরপুর সদর থানার মামলা নং-৭২, তারিখ- ২৭/০৪/২০২২ ইং, ধারা- ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী/২০২০) এর ৯(৪)(খ) মূলে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

র‍্যাব-১৪, সিপিসি-১, জামালপুর ক্যাম্পের স্কোয়াড্রন লীডার আশিক উজ্জামান এক প্রেস রিলিজে জানিয়েছেন, ভিকটিম শিশুটি আলহাজ্ব হাসমত উল্লাহ কিন্ডার গার্ডেন স্কুলের নার্সারিতে পড়ুয়া ছাত্রী। ভিকটিমের বাবা একজন গরিব অসহায় ব্যক্তি। বিগত ১০ মার্চ ২০২২ ইং স্কুল ছুটির পর বাড়ি ফেরার পথে ভিকটিমকে বাড়ির সামনে থেকে বিস্কুট ও কালাই কিনে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নিজের বসত ঘরে ডেকে আনে চরিত্রহীন লম্পট প্রকৃতির রুবেল মিয়া। তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টার এক পর্যায়ে শিশুটির চিৎকার শুনে তার মা ও সাক্ষীরা এগিয়ে এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে। এসময় আসামি দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ভিকটিমের মায়ের অভিযোগে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে শেরপুর সদর থানায় মামলা হলে নেক্কার জনক ওই ঘটনার পলাতক আসামিকে গ্রেফতারের বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নেয় র‌্যাব। অব্যাহত চেষ্টার ফলে অবশেষে নানা তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে আসামীর অবস্থান নিশ্চিত হয়ে র‍্যাব অভিযান চালিয়ে আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।

সর্বশেষ