শনিবার, এপ্রিল ১৩, ২০২৪

মাংসের দাম কম নেওয়ায় ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ

রাজশাহী: পাশের ব্যবসায়ীর চেয়ে মাত্র ৫০ টাকা কমে গরুর মাংস বিক্রি করায় এক মাংস ব্যবসায়ীকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজশাহীর বাঘা উপজেলায়।মাংসের দাম কম নেওয়ায় ছুরিকাঘাত করে কসাই মামুন হোসেনকে (৩০) প্রকাশ্যেই হত্যা করা হয়েছে।
শনিবার (২০ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে বাঘা উপজেলার আড়ানী হাটে এ ঘটনা ঘটে। মামুন আড়ানী পৌরসভার পিয়াদাপাড়া গ্রামের মৃত রহিম উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, মামুন হোসেন আড়ানী হাটে গরু জবাই করে মাংস বিক্রি করছিলেন। এ সময় একই গ্রামের মৃত খোদা বক্সের ছেলে খোকন হোসেনও পাশে মাংস বিক্রি করছিলেন। দুইজনের মধ্যে মাংস বিক্রি নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে খোকনের হাতে থাকা ধারালো ছুরি দিয়েই তাকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে জখম করে। পর তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ পথেই তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে খোকনের কর্মচারী আবদুস সালাম ও রফিকুল ইসলাম বলেন, মামুন ও খোকন পরস্পর মামাতো-ফুফাতো ভাই। একসঙ্গে তারা গরুর মাংসের ব্যবসা করেন। তবে কিছু দিন আগেই তারা ব্যবসা আলাদা করে ফেলেন।

শনিবার সকালে তারা দুইজন পাশাপাশি মাংস বিক্রি করছিলেন। খোকন ৭শ টাকা এবং মামুন ৬শ ৫০ টাকা প্রতি কেজি হিসেবে মাংস বিক্রি করছিলেন। এই ৫০ টাকা কমে গরুর মাংস বিক্রি করা নিয়ে দু’জনের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়। এর একপর্যায়ে প্রকাশ্যে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে মামুনকে হত্যা করা হয়।

বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে নৃশংস এ ঘটনার পর থেকে খোকন পলাতক। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সর্বশেষ