শনিবার, এপ্রিল ২০, ২০২৪

চৌগাছায় বাবা-মায়ের হাতে ছেলে খুন

পারিবারিক কলহের জেরে যশোরের চৌগাছায় বাবা-মায়ের হাতে সাইমন ওরফে রেজাউল নামে এক সন্তান প্রাণ হারিয়েছেন। গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের বড়খান গ্রামের এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সামাসুল আলম ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বড়খানপুর গ্রামের সাপেরপাড়ায় পরিবার নিয়ে বসবাস করেন আয়তাল হোসেন। বিভিন্ন কারণে আয়নালের পরিবারে কলহ লেগে থাকতো। এ কারণে তার তিন ছেলের বড় দুইজন বাবা- মা থেকে আলাদা বসবাস করছিলেন। মেজো ছেলে রিজাউলের বিয়ের পর থেকে তার স্ত্রী ও শাশুড়ির মধ্যেও নানা সময় কলহ হয়। সবশেষ গতকাল সকালে স্ত্রী সুমির ওপর মা সালেহা বেগমের নির্যাতনের প্রতিবাদ করেন রিজাউল। এতে পারিবারিক ভাবে কলহে জড়িয়ে পড়ে তারা।

এক পর্যায়ে বাবা আয়তাল ও ছোট ছেলে মনির রেজাউলকে ধরে রাখে এবং মা সালেহা লাঠি দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত হলে সুমি তার স্বামীর চিকিৎসার জন্য গ্রাম্য ডাক্তার ডেকে আনলেও এতে বাধা দেন মা সালেহা। পরে রাত ১০টার দিকে অবস্থার অবনতি হলে স্ত্রী সুমি আক্তার স্থানীয়দের সহযোগীতায় রেজাউলকে কোঁটচাদপুর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সুমি আক্তার বলেন, আমার স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। আমি এই হত্যার বিচার চাই। তিনি হত্যা মামলার অভিযোগ করবেন বলেও জানান।

কোঁটচাদপুর থানার ওসি জানিয়েছে, এ ঘটনায় নিহতের মা মা সালেহাকে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে। আর মৃত্যুর খবর শুনে নিহতের ছোট ভাই মনির পালিয়ে গেছে।

সর্বশেষ