বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

দেশে ফিরে যাচ্ছেন সীমান্তরক্ষীসহ মিয়ানমারের ৩৩০ নাগরিক

মিয়ানমারের রাখাইনে চলমান যুদ্ধে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া সে দেশের সেনাসহ বিজিপির ৩৩০ সদস্যকে মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে কক্সবাজারের উখিয়ার ইনানীস্থ বঙ্গোপসাগরের উপকূলের নৌবাহিনীর জেটিঘাট এলাকা দিয়ে তাদের মিয়ানমারের প্রতিনিধিদলের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে।

বিজিবির সদর দফতরের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরীফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বিজিপি সদস্যদের হস্তান্তর উপলক্ষে ইনানী নৌবাহিনীর জেটি ঘাটের কাছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) প্রতিনিধিদলের সঙ্গে মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) প্রতিনিধিদলের মধ্যে বৃহস্পতিবার সকালে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে বিজিবি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী।

বৈঠক শেষে বিজিপি সদস্যদের হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু হবে। এ উপলক্ষে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ও টেকনাফের হ্নীলা থেকে বিজিপি সদস্যদের ইনানী নৌবাহিনীর জেটি ঘাট সংলগ্ন এলাকায় নিয়ে আসা হয়েছে।

বিজিবি জানিয়েছে, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে গত ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বিভিন্ন বাহিনীর এই ৩৩০ সদস্য পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন। যেখানে বিজিবির অধীনে আহতদের চিকিৎসা প্রদান করা হয়। উভয় দেশের আলোচনার ফলশ্রুতিতে মিয়ানমারের নৌবাহিনীর একটি জাহাজ বাংলাদেশের সীমানায় আসবে। জাহাজটি গভীর সাগরে অবস্থান করবে। আশ্রয়রত ৩৩০ জনকে পর্যটকবাহী জাহাজ কর্ণফুলীতে করে ওই জাহাজে নিয়ে গিয়ে হস্তান্তর করা হবে।

সর্বশেষ