মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪

মস্কো হামলা : নিহত বেড়ে ৬০, দায় স্বীকার আইএসের

মস্কো হামলা : নিহত বেড়ে ৬০, দায় স্বীকার আইএসের, রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর কনসার্ট হলে বন্দুক হামলার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে পৌঁছেছে ৬০ জনে। সেই সঙ্গে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ১৪৭ জনকে। রাশিয়ার কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা জানিয়েছে, নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

এদিকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করেছে বলে জানা গেছে।

রুশ তদন্ত সংস্থার সর্বশেষ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ক্রোকাস সিটি হল কমপ্লেক্সে সন্ত্রাসী হামলার পর সেখান থেকে এ পর্যন্ত ৬০ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছেন মোট ১৪৭ জন। তাদের নিকটবর্তী বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

মস্কো হামলা : নিহত বেড়ে ৬০, দায় স্বীকার আইএসের, শুক্রবার মস্কোর ক্রাসনোগোরস্ক এলাকার ক্রোকাস সিটি হলে রুশ ব্যান্ড দল পিকনিকের কনসার্ট উপভোগ করতে জড়ো হয়েছিলেন শত শত মানুষ। কনসার্ট শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগে অডিটোরিয়ামে কয়েকজন বন্দুকধারী এলোপাতাড়ি গুলি চালানো শুরু করে। কাছাকাছি সময়ে ওই ভবনে বোমা বিস্ফোরণও হয়।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, হামলার পরপরই ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গিয়েছে বন্দুকধারীরা। তাদের কাউকে এখন পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়নি।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের কার্যালয় ক্রেমলিন থেকে মাত্র ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ক্রোকাস সিটি হলের মোট আসন সংখ্যা ৬ হাজার ২০০টি। হলটির সিসিটিভি একটি ফুটেজে দেখা গেছে, কনসার্ট শুরুর কিছুক্ষণ আগে লোকজন যখন অডিটোরিয়ামে নিজেদের আসনে বসছেন— সে সময় হঠাৎ গুলির শব্দ হলটি কেঁপে ওঠে এবং তারা ছোটাছুটি শুরু করেন।

আর একটি ফুটেজে দেখা গেছে, চাপ চাপ রক্তের মধ্যে অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন কয়েক জন মানুষ।

রয়টার্সকে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘হঠাৎ পেছন থেকে এক ঝাঁক গুলির শব্দ শুনলাম। তারপরই অডিটোরিয়ামে হুড়োহুড়ি শুরু হলো। সবার লক্ষ্য ছিল দ্রুত হল থেকে বের হয়ে এস্কেলেটরের দিকে যাওয়া।’

আড়ও পড়ুন: জয়পুরহাটে কিশোর গ্যাংয়ের লিডারসহ গ্রেপ্তার ৮

হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে; কারণ যে ১৪৭ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে, তাদের মধ্যে অন্তত ৬০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এর আগে ২০০৪ সালে মস্কোর একটি স্কুলে শিক্ষার্থীসহ ১ হাজার মানুষকে জিম্মি করেছিল ইসলামপন্থী সন্ত্রাসীরা। শুক্রবারের হামলার আগ পর্যন্ত সেটি ছিল রাশিয়ায় ইসলামপন্থী সন্ত্রাসীদের সবচেয়ে বড় ‘অপরারেশন’।

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ক্রোকাস সিটি হলে হামলা এবং ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জানানো হয়েছে বলে রয়টার্সকে বলেছেন রাশিয়ার কেন্দ্রীয় নিরপত্তা সংস্থা ফেডারেল সিকিউরিটি সিস্টেমের প্রধান আলেক্সান্দার বোর্তনিকভ।

আইএসের দায়স্বীকার

ক্রোকাস সিটি হলে হামলার কয়েক ঘণ্টার পর তার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে আইএস। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টেলিগ্রামে গোষ্ঠীটির মুখপাত্র আমাক এজেন্সি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘মস্কোতে আইএস যোদ্ধারা হামলা চালিয়ে শতাধিক মানুষকে হতাহত করেছে এবং ঘটনাস্থলে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে নিরাপদে তাদের ঘাঁটিতে ফিরে আসতে সক্ষম হয়েছে।’

বিবৃতি এ প্রসঙ্গে আর কিছু বলা হয়নি।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, গোয়েন্দা সূত্রে এই হামলার তথ্য তারা আগেই পেয়েছিলেন এবং রাশিয়ার সরকারকে সতর্কও করেছিলেন। রয়টার্সকে এক কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা সম্ভাব্য হামলার আভাস পেয়েছিলাম। যথাযথভাবে রাশিয়ার সরকারকে সতর্কও করেছিলাম।’

রাশিয়ার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা সংস্থা এফএসবির কর্মকর্তারাও স্বীকার করেছেন যে দু’সপ্তাহ আগে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এই সতর্কবার্তা দিয়েছিল। তবে এই বার্তা আসার কয়েক ঘণ্টা আগে মস্কোর একটি সিনাগগে আইএসের একটি সম্ভাব্য হামলা রুখে দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছেন রুশ কর্মকর্তারা।

শুক্রবারের হামলার প্রতিক্রিয়ায় এখন পর্যন্ত কোনো দাপ্তরিক বিবৃতি দেয়নি রাশিয়ার সরকার। তবে দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং দেশটির সর্বোচ্চ নিরাপত্তা সংস্থা রাশিয়ান সিকিউরিটি কাউন্সিলের উপপ্রধান দিমিত্রি মেদভেদেভ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, ‘হামলাকারীদের অবশ্যই খুঁজে বের করা হবে এবং নির্মমভাবে ধ্বংস করা হবে।’
সূত্র : রয়টার্স, আনাদোলু এজেন্সি 

সর্বশেষ