বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪

দুই-তৃতীয়াংশ আসনে বিজয়ের দাবি ইমরানের

দু’দিন পেরিয়ে গেলেও ভোট গণনা শেষ হয়নি। এখনও পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক ভাবে ফল ঘোষণা করেনি পাকিস্তান নির্বাচন কমিশন। এই পরিস্থিতিতে নির্বাচনে জয়ের দাবি, পাল্টা দাবি শুরু হয়ে গেছে দেশটিতে।

শুক্রবার নওয়াজ শরিফ বলেছেন, ৮ ফেব্রুয়ারির সাধারণ নির্বাচনে তার দল বিজয়ী হয়েছে এবং তিনি একটি ঐক্য সরকার গঠন করতে চান। বিপরীতে আজ ইমরান খান দাবি করছেন নির্বাচনে পিটিআই দুই-তৃতীয়াংশ আসনে বিজয়ী হয়েছে।

এআই (কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা) দিয়ে বানানো এক ভিডিও বার্তায় ইমরান বলেছেন, জাতির অভূতপূর্ব লড়াইয়ের মাধ্যমে পিটিআইয় ভূমিধস বিজয় পেয়েছে। বৃহস্পতিবারের নির্বাচনে পিটিআই সমর্থকদের ব্যাপক জনসমর্থন দেখে সবাই হতবাক হয়েছে। এখন, কেউ আমাদের আটকাতে পারবে না। উদ্‌যাপন করুন এবং আল্লাহর শুকরিয়া করুন। দুই বছরের নিপীড়ন ও অবিচারের পরও আমরা দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে নির্বাচনে জিতেছি। আপনাদের ভোটের শক্তি সবাই দেখেছে, এখন আপনার ভোট রক্ষা করতে প্রস্তুত থাকুন।

কারাগারে থাকা ইমরানের বক্তব্য তার সমর্থকদের কাছে পৌঁছে দিতে এর আগেও এআই দিয়ে বানানো ভিডিও বার্তার সহায়তা নিয়েছে পিটিআই। এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইমারান খানের ভেরিফাইড পেইজে পোস্ট করা হয়। এই ভিডিও বার্তায় নওয়াজ শরিফকে ‘ছোটলোক’ বলে সমালোচনা করেন তিনি।

পাকিস্তান ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে মহিলা এবং ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য সংরক্ষিত আসন বাদ দিলে এখন মোট আসন ২৬৬। কিন্তু এবার এক প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে ২৬৫টি আসনে ভোট হয়েছে।

পাকিস্তান নির্বাচন কমিশনের বরাতে দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম ডন এবং জিও টিভি লাইভে প্রকাশিত নির্বাচনী ফলাফলে দেখা যায় সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৯৯টি আসনে জয় পেয়েছে যাদের অধিকাংশই ইমরানের দল পিটিআই সমর্থিত বিপরীতে নওয়াজ শরিফ দল পিএমএল-এন পেয়েছে ৭১টি আসন আর পিপিপ পেয়েছে ৫৩ আসন।

সর্বশেষ