বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

নীলফামারীতে তৈরি হচ্ছে চোখের কৃত্রিম পাপড়ি

নীলফামারীতে তৈরি হচ্ছে চোখের কৃত্রিম পাপড়ি, মানুষের সৌন্দর্য প্রকাশে শরীরের যে প্রতঙ্গটি সব থেকে আকর্ষণ কাড়ে তা হলো চোখ। চোখ নাকি মনের কথা বলে। মনের ভাব প্রকাশেও চোখ গুরুত্বপূর্ণ। তাইতো প্রথমবার প্রিয়জনের চোখ দেখেই প্রেমে পড়েছেন অনেকে। এই চোখকেই নানাভাবে সাজিয়ে রাখেন নারীরা। আধুনিক নারীদের চোখ সাজানোর অন্যতম অনুষঙ্গ চোখের পাপড়ি বা আইল্যাশ।

দেশের উত্তরের শহর নীলফামারীর সৈয়দপুরের ওয়াপদা মোড়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের নিচতলায় ‘মিন্নি ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল- এর স্বত্বাধিকারী মিন্নি আকতার মিথুন। ২০২৩ সালে চীনা নাগরিক লীন ঝানরুইকে ভালোবেসে বিয়ে করেন মিন্নি। বিয়ের পর স্বামী-স্ত্রী মিলে গড়ে তোলেন এই পাপড়ি তৈরির প্রতিষ্ঠান। এখানকার আইল্যাশ বা কৃত্রিম পাপড়ি এখন দেশের গণ্ডি পার হয়ে রফতানি হচ্ছে বিদেশেও। ।

নীলফামারীতে তৈরি হচ্ছে চোখের কৃত্রিম পাপড়ি, মিন্নি ট্রেড ইন্টারন্যাশনালে ২৫ জন নারী ও ৫ জন পুরুষ কর্মী রয়েছেন। এখানে কাজ করে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা পারিশ্রমিক পাচ্ছেন তারা।

মিন্নি জানান, কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যেই স্বামী-স্ত্রী মিলে এই প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করেন তারা। কারখাোটিতে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। প্রশিক্ষণ শেষে রয়েছে কাজ করারও সুযোগ ।

এই দম্পতির সাফল্য দেখে দেশীয় উদ্যোক্তার সংখ্যা আরো বাড়বে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

সর্বশেষ