বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

‘ছোট সোনামনিরা তোমরা অনেক পেছনে থাকলেও তোমরা আমার হৃদয়ের কাছেই আছো’

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত শিশু সমাবেশে বক্তৃতা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় শিশু দিবসের অনুষ্ঠান হলেও সামনের সারিগুলোতে বয়স্ক নেতাকর্মী ও সরকারি কর্মকর্তারা বসেছিলেন। তার অনেক পেছনে জায়গা করা হয় শিশুদের জন্য। বিষয়টিকে খুব একটা ভালোভাবে নেননি প্রধানমন্ত্রী। সেজন্য সামনে বসা বয়স্কদের নিয়ে মজা করতে ছাড়েননি সরকারপ্রধান।

সামনের সারিতে বসাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটা শিশুদের অনুষ্ঠান। আমি দেখছি আমার সামনে সব বয়োবৃদ্ধ শিশুরা বসে আছে। এখন নিজের কাছে মনে হচ্ছে কার সামনে বক্তব্য দিচ্ছি। এই বয়োবৃদ্ধ শিশু…. আমার শিশুরা কোথায়? শিশুরা তো সেই দূরে, পেছনে। কেন তারা পেছনে থাকবে?’

পরে প্রধানমন্ত্রী অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ‘আমার অনুরোধ থাকবে এরপর যখন শিশুদের অনুষ্ঠান হবে, সামনের সারিগুলোতে শিশুরা থাকবে। আর একটা পাশ সম্পূর্ণ শিশুদের জন্য থাকবে।’ পরক্ষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার অবশ্য একটা সুবিধা আছে। সেটা হলো আমার অনেক বয়স হয়ে গেছে। সেজন্য সামনে যারা, তাদের আমি শিশু ভাবতেই পারি। সেটা আমার ভাবার অধিকার আছে। আমি সেটি মনে করেই বক্তব্য দিচ্ছি। তাছাড়া আর কী করবো? শিশুদের তো দেখতেই পাচ্ছি না।’

এরপর শিশুদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘ছোট সোনামনিরা তোমরা অনেক পেছনে থাকলেও তোমরা আমার হৃদয়ের কাছেই আছো।’

প্রধামন্ত্রীর এমন বক্তৃতা শুনে এ সময় শিশুরা কড়তালি দেন এবং সমর্থন জানান। সামনে বসে থাকা দলীয় নেতাকর্মী ও সরকারি কর্মকর্তারাও মাথা নেড়ে সম্মতি দেন।

সর্বশেষ